শ্রীনগরে শশুরদের হামলায় জামাই ও বিয়াই আহত

প্রকাশিত: ৬:৪০ পূর্বাহ্ণ, জুলাই ২৮, ২০২১

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: শ্রীনগর শশুরের হামলায় জামাই ও বিয়াই আহত হয়েছে। উপজেলার রাঢ়ীখাল ইউনিয়নের উত্তর বালাশুর বৌ-বাজার জামাই বাড়ীতে এই হামলার ঘটনা ঘটে। রাঢ়ীখাল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ বেপারী ও ইউনিয়ন বিএনপির সাবেক সভাপতি কফিলউদ্দিন বেপারীর নের্তৃত্বে তার ভাই চান্দু বেপারী, জুলহাস বেপারীর বিরুদ্ধে সৌদি প্রবাসী জামাতা মো. রনি ও তার পিতা খোকন মুন্সীর ওপর এই হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রনি ও তার পিতা খোকন মুন্সী আহত হন। হামলার ঘটনায় শ্রীনগর থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বালাশুর বানিয়াবাড়ির চান্দু বেপারীর কন্যা সাথী আক্তারের (২৬) সাথে একই এলাকার বালাশুর বৌ-বাজারের খোকন মুন্সীর পুত্র রনির (৩০) সাথে বিয়ে হয়। পারিবারিক কোলাহলের জের ধরে সাথি আক্তারের অভিযোগের ওপর ভিত্তি করে তার পিতা চান্দু বেপারী, চাচা রাঢ়ীখাল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হানিফ বেপারী, বিএনপির সাবেক সভাপতি কফিলউদ্দিন বেপারী, জুলহাস বেপারীসহ ১৫/২০ জনের একটি গ্রুপ জামাতা রনির বাড়িতে হামলা চালায়। এ সময় প্রবাসী রনি ও তার পিতা খোকন মুন্সী আহত হয়।
ভূক্তভোগী খোকন মুন্সী বলেন, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে আমার বিয়াইরা এই হামলা চালিয়ে বাড়িঘর ভাঙচূর করাসহ আমাকে ও আমার ছেলেকে মারধর করে আহত করে। রনি গত ২০ দিন পূর্বে সৌদি থেকে ছুটিতে বাড়িতে আসে। এঘটনায় উপায় না পেয়ে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে শ্রীনগর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করি।
বিএনপি নেতা কফিলউদ্দিন বেপারীর কাছে এ বিষয়ে জানতে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তার সাথে কথা বলা সম্ভব হয়নি।
রাঢ়ীখাল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হানিফ বেপারীর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, পারিবারিক কোলাহলের কারণ জানতে রনির বাড়িতে গেলে তাকে না পেয়ে আমরা রাস্তায় অপেক্ষা করছিলাম। এ সময় মোটরসাইকেল চালিয়ে এসে আমাদের এক জনের পায়ের ওপরে চাকা উঠিয়ে দিলে বাইকটি শ্লিপ খেয়ে পরে গিয়ে রনি আহত হয়। কোন হামলার ঘটনা হয়নি।
এ ব্যাপারে অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা ও শ্রীনগর থানার এসআই আল-আমিন জানান, অভিযোগ হাতে পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শ্রীনগর,মুন্সীগঞ্জ
২৬/০৭/২১ইং