শ্রীনগরে রাস্তা সংস্কারের দাবি এলাকাবাসীর

প্রকাশিত: ২:৫৪ অপরাহ্ণ, মে ২৬, ২০২১

তাইজুল ইসলাম উজ্জ্বল : মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে একটি রাস্তা সংস্কারের দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী। উপজেলার রাঢ়ীখাল ইউনিয়নের বালাশুর চৌরাস্তা থেকে বালাশুর নতুন বাজার এলাকা পর্যন্ত প্রায় আড়াই কিলোমিটার রাস্তা সংস্কারের জোর দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।এর আগে গত ২০২০সালের ২৫নভেম্বর বুধবার বিকালে রাস্তাটি সংস্কারের দাবিতে হাজারো মানুষের উপস্থিতিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করেছিলো নতুন বাজার এলাকাবাসী।মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করার কিছু দিন পরেই রাস্তা খোরাখুরি করতে দেখা গেলেও তা কিছু দিন পরে আবার বন্ধ হয়ে যায়।এর পরে কেটে গেছে প্রায় ছয় মাস।এখনো রাস্তাটি সংস্কারের কোনো চুড়ান্ত উদ্যোগ চোখে পরেনি।

সরজমিনে রাস্তাটি পরিদর্শনে গিয়ে দেখা যায় বালাশুর চৌরাস্তা থেকে বালাশুর নতুন বাজার পর্যন্ত রাস্তাটি দীর্ঘদিন সংস্কার না করায় খানাখন্দে ভরে গেছে।আড়াই কিলোমিটারের প্রায় দের কিলোমিটারি চলাচলের একেবারে অনুপযোগী।রাস্তাটির সবচেয়ে বেশি খারাপ অবস্থা বানিয়াবাড়ী মেইল ঘরের মোর থেকে বালাশুর নতুন বাজার পর্যন্ত।

স্থানীয়রা অভিযোগ করে বলেন, বালাশুর চৌরাস্তা থেকে বালাশুর নতুন বাজার পর্যন্ত প্রায় আড়াই কিলোমিটার সড়কের বেহালদসা।এ পথে যাতায়াত করাটা খুবি কষ্টসাধ্য ব্যাপার।ওই রাস্তা সংলগ্ন অগ্রসর বিক্রমপুরের একটি পুকুরে মাছ চাষের কারণে রাস্তাটি ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। এতে করে রাস্তার পাড় ধ্বসে পরছে। এছাড়াও পাকা রাস্তাটি সংস্কারের অভাবে খানাখন্দে ভরে গেছে। এতে করে মানুষের চলাচলে প্রায় অনুপযোগী হয়ে পরে রাস্তাটি।সামান্য বৃষ্টিতে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়ে চরম ভোগান্তিতে ফেলে এলাকাবাসীকে।রাস্তাটি দিয়ে ভাগ্যকুল ইউনিয়নের জগন্নাথপট্টি, কাঠিয়াপাড়া রাঢ়ীখাল ইউনিয়নের নতুন বাজার, টেটামারাসহ বেশ কয়েকটি গ্রামের কয়েক হাজার মানুষ প্রতিদিন যাতায়াত করেন।মানুষের দুর্ভোগ লাঘবে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সুদৃষ্টি কামনা করেন স্থানীয়রা।

স্থানীয় শাহাদাৎ হোসেন আকাশ বলেন, প্রতিদিন হাজার হাজার মানুষ এই রাস্তা ব্যবহার করে, কিন্তু রাস্তা উন্নয়ন সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এটা উপলব্ধি করতে অক্ষম। দীর্ঘদিন ধরে উন্নয়নের নামে রাস্তা খুঁড়ে রেখেছে কিন্তু তা সংস্কারের কোন খবর নেই। রাস্তার প্রতি তাদের উদাসীনতা দেখে প্রশ্ন জাগে তারা কি এই রাস্তা ব্যবহারকারীদের সত্যিই মানুষ ভাবে?

স্থানীয় আইয়ুব আলী শিকদার জানান, তিনি এলাকাবাসীর সাথে আলোচনা করে শ্রীনগর উপজেলা প্রকৌশলীর কার্যালয়, শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রকৌশলীর কার্যালয় ও মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে সড়কটি সংস্কারের দাবি জানিয়ে দরখাস্ত দিয়েছেন।তাতেও কোনো লাভ হয়নি।

রাঢ়ীখাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল বারেক খানের কাছে এ বিষয় জানতে তার মুঠোফোনে একাধিকবার ফোন দিলেও তিনি মোবাইল ফোনটি রিসিভ করেননি।

রাস্তা সংস্কারের বিষয়ে শ্রীনগর উপজেলা উপ-সহকারী প্রকৌশলী শরিফুল ইসলাম জানান, বালাশুর চৌরাস্তা থেকে এতিমখানা পুকুর পর্যন্ত রাস্তার কাজ চলোমান রয়েছে।এতিমখানা পুকুর থেকে বালাশুর নতুন বাজার রাস্তার কাজ ২০২১-২০২২ অর্থ বছরে gov maintenance থেকে করা হবে।