শ্রীনগরে বাল্য বিবাহ বন্ধ করে দিলেন ইউএনও

প্রকাশিত: ৯:৪১ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ১৮, ২০২১

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: শ্রীনগরে এক স্কুল ছাত্রীর বাল্য বিবাহ
বন্ধ করে দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণব কুমার ঘোষ। গত
বুধবার দুপুরের দিকে উপজেলার খৈয়াগাঁও গ্রামে ওই ছাত্রীর বাড়িতে
উপস্থিত হয়ে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা বন্ধ করেন তিনি। এর আগে তার
কাছে ১০৯ নম্বর থেকে ফোন আসে।
জানা যায়, ষোলঘর ইউনিয়নের খৈয়াগাঁও গ্রামের সিরাজ শেখের স্কুলে
পড়–য়া কন্যার সাথে একই ইউনিয়নের উমপাড়া গ্রামের রবেদ আলীর পুত্র
দক্ষিণ আফ্রিকা প্রবাসী মো. লিটনের সাথে বিয়ের দিন ধার্য করা
হয়েছিল। খবর পেয়ে ইউএনও প্রণব কুমার ঘোষ উপস্থিত হয়ে বাল্য
বিবাহটি বন্ধ করেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণব কুমার ঘোষ এক বার্তায় জানান,
ওই ছাত্রীর জন্মনিবন্ধন কার্ড যাচাই বাছাই করে দেখা যায় তার এখনও
১৮ বছর হয়নি। তাই বাল্য বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা বন্ধ করে ওই ছাত্রীর
অভিভবকদের কাছ থেকে মুচলেকা গ্রহন করা হয়েছে। এছাড়াও লিটন ও
তার পরিবারের কাছ থেকেও মুচলেকা রাখার পাশাপাশি তাকে কঠোরভাবে
সতর্ক করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন এদিকে নজর রাখবে। এ সময়
স্থানীয় জনপ্রতিনিধি, গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ ও শ্রীনগর থানা পুলিশ
উপস্থিত ছিলেন।
শ্রীনগর,মুন্সীগঞ্জ
১৮/১১/২১ইং