শ্রীনগরে ধান বীজতলায় ব্যস্ত কৃষক

প্রকাশিত: ৯:২৯ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৮, ২০২১

শ্রীনগর (মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধি: শীতের হিমেল হাওয়া গায়ে মেখে শ্রীনগরে বুরো ধানের বীজতলায়
ব্যস্ত সময় পাড় করছেন কৃষকরা। ধানের আবাদকে সামনে রেখে বীজতলার দিকেই বেশী নজর দিচ্ছেন তারা।
এরই মধ্যে আড়িয়াল বিল এলাকার আংশিক জমিতে আগাম বুরো ধানের চারা রোপনের কাজ শুরু হয়েছে।
উপজেলায় প্রায় ১০ হাজার হেক্টর জমিতে বুরো ধানের চাষ করার লক্ষ্যে বিশাল এই কর্মযজ্ঞের চাহিদা পূরণ
করতে বিভিন্ন জেলা থেকে হাজার হাজার কৃষি শ্রমিক এখানে আসতে শুরু করেছেন। মুন্সীগঞ্জের
শ্রীনগর উপজেলাব্যাপী ধানি জমিগুলো পরিস্কার পরিচ্ছন্নতার কাজের পাশাপাশি ধান বীজতলা তৈলীর
বিভিন্ন কাজকর্ম করে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন কৃষকরা।
সরেজমিন ঘুরে দেখা যায়, কোন চকে প্রায় হাঁটু পানিতে ধানি জমির জঙ্গল পরিস্কার করা হচ্ছে। পানি
নিস্কাশনের পরেই জমিতে চাষ দেয়া শুরু হবে। আবাদি জমি প্রস্তুতের পাশাপাশি বীজতলায় বিভিন্ন
জাতের ধানের বীজ বপন করা হচ্ছে। লক্ষ্য করা যায়, উঁচু জমিতে কাঁদাযুক্ত মাটিতে ২৮ ও ২৯ হাইব্রিড
জাতের ধানবীজ বপন করছেন বেশী। অপরদিকে বিস্তীর্ণ আড়িয়াল বিল এলাকায় কিছু সংখ্যক জমিতে
আগাম ধান চাষাবাদে এরই মধ্যে ধান চারা রোপনের কাজ শুরু হয়ে গেছে। অন্যদিকে আলু চাষীরাও ব্যাপক
প্রস্তুতি নিচ্ছেন। এরই মধ্যে উপজেলার বীরতারা এলাকায় কিছু সংখ্যক উঁচু জমিতে আগাম আলু চাষের
জন্য চাষ ও সার ছিটানোর কাজ শুরু হতে দেখা গেছে।
স্থানীয় কষকরা জানান, ধান চাষের জন্য বীজতলা প্রস্তুত করছেন। এছাড়াও ধানি জমি পরিস্কার পরিচ্ছন্ন
করছেন। তবে জমিতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হওয়ায় ধান চাষে কিছুটা বিলম্ববনায় পরার অশঙ্কা করছেন তারা।
এছাড়াও ডিজেলের দাম বাড়ায় ধানের জমিতে পানি সেচে অতিরিক্ত খরচ নিয়েও দুশ্চিন্তা করছেন তারা।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, স্থানীয় হাটবাজারে প্রতি লিটার ডিজেল খুচরাভাবে বিক্রি হচ্ছে ৮৫
টাকা করে। খোলাবাজারে ২৯ ধানবীজের ১০ কেজির প্যাকেট ৪৭০ টাকা ও ১২ কেজির প্যাকেট বিক্রি
হচ্ছে ৯০০ টাকা। অন্যান্য ধান বীজের প্যাকেটের মান ও ওজন হিবেসে ভিন্ন ভিন্ন দামে বিকিনিনি
হচ্ছে। একজন কৃষি শ্রমিকের মজুরি দিতে হচ্ছে ৩ বেলা খাবারসহ ৫০০ থেকে ৫৫০ টাকা করে। এছাড়াও
জমিতে চাষ, সার, পরিচর্যাসহ কৃষকের সোনালী ফসল ঘরে তোলা পর্যন্ত অন্যান্য খরচ তো থাকছেই।
পাইকাররা কৃষকের গোলার প্রতি মণ ধান ক্রয় করছেন ১০৫০-১১০০ টাকা দরে। বাসমতি ধান কেনা বেচা
হচ্ছে ১২০০ টাকা করে।
শ্রীনগর উপজেলা কৃষি অফিসার শান্তনা রানী জানান, উপজেলার ১২’শত জন কৃষকের মাঝে ২ কেজি করে
ধান বীজ বিতরণ করা হয়েছে (১ বিঘার জন্য)। এছাড়াও উফশী জাতের ধান বীজ ও সার বিতরণ কার্যক্রমের
আওতায় ৫’শত জন কৃষক পাবেন ৫ কেজি করে ধান বীজ, ১০ কেজি করে ডিএপি ও এমওপি সার। খুব
শীঘ্রই তা বিতরণ করা হবে। এছাড়াও সার গুদাম ও বিক্রয় কেন্দ্রগুলো পরিদর্শন করা হচ্ছে। সেই লক্ষে উপজেলা
প্রশাসন ও কৃষি অফিস মাঠে কাজ করছেন।
শ্রীনগর,মুন্সীগঞ্জ
২৮/১১/২১ইং