Breaking News
Home / অর্থনীতি ও শিক্ষা / শ্রীনগরে দেদারছে পলিথিন বিক্রি হচ্ছে

শ্রীনগরে দেদারছে পলিথিন বিক্রি হচ্ছে

মোঃ জাকির হোসেন লস্কর: পলিথিন বাজারজাত নিষিদ্ধ আইনে আছে কিন্তু ভোক্তা ও বিক্রেতা কেউই তা মানছেন না। দেদারছে বিক্রি হচ্ছে পলিথিন। শ্রীনগরে ক্ষুদ্র থেকে বৃহৎ ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে পলিথিনের ব্যবহার বাড়ছে। জানা গেছে, শ্রীনগর খ্যাতনামা প্রতিষ্ঠানগুলো তাদের পণ্য বিক্রয়ে ব্যবহার করে পলিথিন। বিশেষ করে উপজেলা হোটেল গুলোতে এর প্রচলন বেশি। তবে থেমে নেই ভ্রাম্যমাণ ও ক্ষুদে ব্যবসায়ীরাও। পণ্য বিক্রয়ের ক্ষেত্রে এগুলো ব্যবহার করা হয়। শ্রীনগরে খাবার বিক্রি প্রতিষ্ঠানের প্যাকেটের ভেতর পলিথিন ব্যবহার করা হয়। একই সাথে উপজেলায় খোলামেলা জায়গায়ও পণ্য বিক্রয়ে ব্যবহার করা হয় এই নিষিদ্ধ পলিথিন। এসব জায়গা থেকে প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা থেকে শুরু করে খাবার কেনেন একেবারে নিম্ন শ্রেণির মানুষও। কিন্তু কেউ কিছু না বলায় পলিথিন ব্যবহারের হারও বৃদ্ধি পাচ্ছে। অপরদিকে উন্নতমানের প্রতিষ্ঠান থেকে খাবারের সাথে ব্যবহৃত পলিথিন পরে বর্জ্য হিসেবে গণ্য হয়। আর যা ফেলা হয় রাস্তার পাশে অথবা ড্রেনে।

যা পরিবেশের ওপর বিরূপ প্রভাব বিস্তার করে। সরেজমিন উপজেলার,বীরতারা বাজার, হাঁসারা বাজার, সিংপাড়া বাজার, শ্রীনগর বাজারসহ অন্যান্য এলাকায় অবস্থিত খাবার দোকানে পলিথিন ব্যবহার দেখা গেছে। উপজেলার অভিজাত হোটেল থেকে বিরিয়ানী কেনা মো. তৌহিদুল ইসলাম বলেন, বড়-ছোট সকল হোটেলে খাবার বিক্রয়ে পলিথিন ব্যবহার করা হয়। বিষয়টাতো সংশ্লিষ্টরা সবাই জানে। কিন্তু কি হয় তাদের? হাঁসাড়া এলাকার বেসরকারি চাকরিজীবী মধাব মন্ডল বলেন, পলিথিন ব্যবহার ক্ষতিকর। কিন্তু নিয়মিত অভিযান হলে এর ব্যবহার কিছুটা হ্রাস করা যাবে। সিংপাড়া মাছ ব্যবসায়ী মো. খাদেম আলী বলেন, পলিথিন ছাড়া ক্রেতারা সাধারণত মাছ নিতে চায় না। ক্রেতাদের প্রয়োজন মেটাতে পলিথিন ব্যবহার করা হয়। পলিথিনের ব্যবহার সারা বছরই চলে। কিন্তু তেমন কোন সমস্যা না হওয়ায় ধীরে ধীরে বৃদ্ধি পায়।

About admin

Check Also

শ্রীনগরে ইয়াসমিন দেলোয়ার হাসপাতালের ৩য় বর্ষপূতি অনুষ্ঠান পালিত

শ্রীনগর(মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ শ্রীনগরে ইয়াসমিন দেলোয়ার এন্ড মডার্ণ হাসপাতালে স্বাস্থ্য বিধি মেনে বর্ষপূতি অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েছে। …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *