Breaking News
Home / রাজনীতি টাইমস / শ্রীনগরে সরকারি রাস্তা দখল করে বাড়ি নির্মাণ- প্রতিবেশিদের যাতায়াতে ১২ মাস ভরসা নৌকা

শ্রীনগরে সরকারি রাস্তা দখল করে বাড়ি নির্মাণ- প্রতিবেশিদের যাতায়াতে ১২ মাস ভরসা নৌকা

মোঃ রুবেল ইসলাম তাহমিদ,লৌহজং মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরে দির্ঘদিন ধরে সরকারি রাস্তা দখল করে বাড়ি-ঘর নির্মাণের কারনে কয়েকটি পরিবার ১২মাস যাতায়েত করেন নৌকায়। উপজেলার শ্যামসিদ্ধি ইউনিয়নের গাদিঘাট গ্রামের মাঝেরহাটি এলাকার প্রভাবশালী আবুল হাসেম মুন্সী দীর্ঘদিন যাবৎ রাস্তাটি দখল করে রাখায় ভোগান্তিতে পরেছে এলাকাবাসি। শুধু তাই নয়! পাশের বাড়ির নুরুল হক আয়নাল হক সহ অনেক অসহায় দরিদ্রদের কে সরকারি রাস্তা ব্যবহার করতে দিচ্ছেন না এই দখল দার। বাধ্য হয়ে অসহায় দরিদ্ররা নৌকা দিয়ে ঘুরে রাস্তায় আসতে দেখাযায় প্রায় তিন বছর ধরে। সিমাহীন দূর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে এই পরিবার গুলোর। কয়েক দফা দরবার করেও হয়নি কোন সমাধান।  সরোজমিনে গিয়ে জানা যায়, গাদিঘাট মাঝের হাটির  মুন্সীবাড়ি ও হাটি পাড়ায় ২ শতাধিক পরিবারের বসবাস।  এই ৩টি পাড়া মহল্লায় যাতায়াতের এক মাত্র ভরসা এই রাস্তাটি। গাদিঘাট মৌজার আর.এস ০১ খতিয়ানের আর.এস ২৫১২ দাগের রাস্তা, যা ২শত মিটার অধিক দীর্ঘ ও ৯ ফুট প্রসস্থ। সরকারি এস.এ ও আর.এস পর্চা ও ম্যাপে থাকলেও তা বাস্তবে নেই। দেখাগেছে কোথাও ৪ ফুট আবার কোথাও ৬ ফুট কোথাও রাস্তাটি পুরোপুরি ক্ষমতাশিল দের দখলে ও রাস্তার দুই পাশেই আরো ০৮/১০ টি বাড়ি ২/৩ফুট করে দখল করে রেখেছে। রাস্তায় শেষের দিকে বাড়ি মালিক হাসেম মুন্সী, পুরো রাস্তাটি দখল করে পাকাবাড়ি নির্মাণ করায় রাস্তাটি সরকারি ম্যপের জায়গায় নেই, পাষের বাড়ির উপর দিয়ে সরু হয়ে গেছে। তাতে ওই বাড়ির মালিক নিজ বসত ঘড় সরিয়ে দিয়েছেন মানুষের চলাচলের সুবিদার্থে। অনেক আগে। সিমাহীন দূর্ভোগের কারনে গত কয়েক বছর আগে এই  রাস্তাটি ইউনিয়ন পরিষদ থেকে ইট বিছানো কাজ শুরু করলেও  রাস্তার যায়গাটি দখলকরে রাখার কারনে পুরো কাজটি  সংস্কার সম্পর্ণ করা হয়নি বন্ধকরে দিতে হয়কাজ। এরপর থেকে আজও রাস্তাটি সংস্কার করা হয়নি। এই রাস্তাটি উদ্ধার এবং সংস্কারের দাবীতে এলাকাবাসীর পক্ষে শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) বরাবর লিখিত অভিযোগ করেন গাদিঘাট মাঝের কান্দি গ্রামের ভুক্তভোগীরা,তাদের  সই সাক্ষর সহ প্রায় ৩০ জন  এলাকাবাসী। এরই ধারাবাহিকতায় শ্যামসিদ্ধি ইউনিয়ন ভূমি অফিসের সহকারি কর্মকর্তা টুটুল আহমেদ ঘটনাস্থল তদন্তে যান। সেখানে একজন এলাকার ভুক্তভোগী নুরুল হক জানান হাসেম মুন্সীর অত্যাচারে আমরা দুই ভাই মোঃ আয়নাল হক সহ  এলাকাবাসী অনেকেই অতিষ্ট। আমাদের বাড়ির পশ্চিম পাশ দিয়েই একশ বছরের পুরোনো সরকারি রাস্তা থাকলেও। দখল দার হাসেম মুন্সী রাস্তা আটকে দেওয়ায় আমরা বাড়ি থেকে সরাসরি রাস্তায় যেতে পারি না। কোন প্রকার মানবতা করেনি সে। এলাকার গণ্যমান্যদের জানিয়েছি, তারা বলেন ওর সাথে তুমি পারবা না, ও খারাপ লোক, তুমি গরীব মানুষ। বার বার বলেছি রাস্তা ছেড়ে দেওয়ার জন্য। সে বলে তোমাদের কে সে এই রাস্তা দিয়ে যেতে দেব না, সে আরো বলেছে তুমি যা পারো করিও, পারলে মামলা দিও। আমি অসহায় হয়ে দীর্ঘদিন ধরে বাড়ির দক্ষিণ পাশে খাল দিয়ে নৌকায় করে ঘুরে আসতে হয় সন্তানদের নিয়ে রাস্তায়। আর কত কষ্ট করব, তাই বাড়ি ছেরে চকের জমিতে ঘর বানিয়ে জীবন যাপন করছি কিছুদিন ধরে।তবে আমার ছোট ভাই ঘর সরিয়ে নেওয়ার মত টাকা নাই, তাই সে ওই বাড়িতেই রয়েগেছে তারও  বার মাস নৌকা দিয়ে বাড়ি থেকে পাড় হতে হচ্ছে। আমরা গরীব তাই কেউ আমাদের দেখে না।
#  ১২মাষ পারাপারের ভরসা এখন  নৌকা #
আরেক  ভুক্তভুগী মোঃ মোস্তফা কামাল জানান, আমরা ৩ ভাই প্রবাশে থাকি অনেকদিন , আমরা দেশে না থাকায় হাসেম মুন্সী  ক্ষমতার বলে সরকারি রাস্তা দখল করে আমাদের বাপ দাদার আমলের কিনা জায়গার উপর রাস্তা চাপিয়েদিয়ে। সরকারি একশ বছর আগের  রাস্তার উপরে সে দখল করে পাকা ঘর নির্মাণ করেছে। এমকি তার নিজ বসত বাড়ির ভীতরে আমাদের জায়গা আছে সেটাও দিচ্ছে না। এ বিষয়ে তাকে এলাকার মানুষ কিছু বল্লে তাকে কেইছ মামলার ভয় সহ নানা ভাবে অত্যাচারে রাখেন।  তিনি আরো বলেন বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জিঠু সাহেব অনেক আগে রাস্তাটি সংস্কারের উদ্যেগ নিয়ে কিছুটা কাজ করেছে সে সময় রাস্তাটি  অবৈধ ভাবে দখল করা না থাকলে রাস্তার কাজ সম্পুর্ন হতো। গত বৃহস্পতিবার নায়েব অফিসের লোকজন এ ব্যাপারে দেখতে এসেছিল। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সামনে ছিল। সে সময়ও রাস্তার বিষয়ে আলোচনায় আবুল হাসেম মুন্সী উত্তেজিত হয় আমাদে কে নানা রকম কথা বার্তা বলেন  । এক মাত্র  তার কারনে, বেহাল এ রাস্তাটির ও খালের উপর একটি কাঠের পুল এবং নামি দামি একটি  মাদরাসা সহ কয়েকটি গ্রামের মানুষের যাতায়াতের ২ কি.মি. কাচা রাস্তা সংস্কার হচ্ছে না। সরকারের ম্যাপে অনুযায়ী যে ভাবে রাস্তা আছে দ্রুত উদ্ধার করে এলাকাবাসীর দূর্ভোগ কমাতে সংশ্লিষ্ট কতৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। এ বিষয়ে আবুল হোসেন মুন্সী জানান, আমার জায়গার উপর দিয়ে রাস্তা গেছে। আমার বাড়ির পশ্চিমে রাস্তা ছেরেছি। এরপরও আমার জায়গা আছে আমি কারো যায়গা দখন করিনি । শ্যামসিদ্ধি ইউনিয়ন নায়েব নজরুল ইসলাম জানান, সহকারি কর্মকর্তা ঘঠনাস্থল পরিদর্শন করেছে। তার রিপোর্ট পরবর্তি উর্ধতন কতৃপক্ষ দেখে আল্প সময়ের মধ্যে ব্যবস্থা নিবে। উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান জিঠু জানান, এটা দীর্ঘ দিনের সমস্যা। এক সময় পায়ে হেটে চলা মুসকিল ছিল। আমরা যুবকরা উদ্যোগ নিয়ে অনেকের ঘরবাড়ি সরিয়ে রাস্তা বের করেছি। কিন্তু এখনো ৮/১০ টি বাড়ি ২/১ ফুট করে রাস্তায় আছে। তাই তাদের কে নিয়ে বসে সমাধানের একটা কথা রয়েছে। স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান রতন মিয়া জানান, বিষয়টি আমি শুনেছি। এবং শ্রীনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) অফিস থেকে ফোনে জানিয়েছে আসলে বহু দিনের সমস্যা এ রান্তাটি যে ভাবে আছে সবাই  দখল ছেরে দিলে  অমি  উর্ধতন কতৃপক্ষ কে সংস্কার করার প্রস্তাব করতে পারি।

About admin

Check Also

বাগমারার হামিরকুৎসা ও যোগীপাড়া ইউনিয়নের সদস্য পদে উপনির্বাচন অক্টোবরে

বাগমারা (রাজশাহী) প্রতিনিধি: রাজশাহীর বাগমারা উপজেলার যোগিপাড়া ও হামিরকুৎসা ইউনিয়নের সাধারণ সদস্য পদে উপনির্বাচনের তফশিল …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *