Home / সারাদেশ / ষোলঘর ইউপি চেয়ারম্যানের বারাবারি ভূমিহীন পরিবারকে বসত ঘর ভাঙ্গতে লিখিত নির্দেশ

ষোলঘর ইউপি চেয়ারম্যানের বারাবারি ভূমিহীন পরিবারকে বসত ঘর ভাঙ্গতে লিখিত নির্দেশ

শ্রীনগর(মুন্সীগঞ্জ) প্রতিনিধিঃ-মুন্সীগঞ্জ শ্রীনগর উপজেলার ভূমিহীন পরিবারকে বসত ঘর ভেঙ্গে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য ইউপি চেয়ারম্যান ২৪ ঘন্টার লিখিত নির্দেশ দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। গত ১৫ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে উপজেলার ষোলঘর ইউনিয়ন পরিষদে ডেকে নিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম ২৪ ঘন্টার মধ্যে বসত ঘর ভেঙ্গে অন্যান্য চলের যাওয়ার জন্য লিখিত নির্দেশ দেন এ ভূমিহীন পরিবারটিকে। ভূক্তভোগী পরিবারের উজ্জল শেখ জানায়, উপজেলার পশ্চিম দেউলভোগ মৌজাস্থিত সি.এস ও এস. এ ৪৮৮ দাগ ও আর এস ৪৭৮ দাগের ৯০ শতাংশের পূর্ব পাশের শেষে এবং ষোলঘর মৌজাস্থি আর এস ১৫৭৬ দাগের ৬১ শতাংশের পশ্চিমের শেষে দুই মৌজার মধ্যবর্তী গ্যাপের ২১ শতাংশ জায়গার দুই পার্শ্বেই মৃত রফিকুল ইসলাম খরিদ সূত্রে মালিক ও দখলদার নিয়োজিত থাকিয়া বিগত ২৩/২৪ বৎসর পূর্বে ইসমাইল শেখকে তার পরিবারসহ বসবাস করতে দেয় মৃত তিনি। ইসমাইল শেখ মৃত্যূ বরন করার পর তাহার ছেলে উজ্জল শেখ বাবাকে দেওয়া মৃত রফিকুল ইসলাম কর্তৃক কোন কাগজ পত্র আছে মর্মে খোজাখুজি করে না পেয়ে গত ০৮ বৎসর পূর্বে ভুক্তভোগী অসহায় উজ্জল শেখ উক্ত জায়গাটি ভুমিহীন বন্দোবস্তের জন্য শ্রীনগর সহকারী কমিশনার(ভুমি) অফিসে আবেদন করে। তার আবেদনের প্রেক্ষিতে শ্রীনগর ভুমি অফিসের কর্মকর্তা গন সকলের জায়গা মাপযোগ করে উক্ত পশ্চিম দেউলভোগ মৌজার আর এস মাপে ৮৩ শতাংশ ভূমি পেয়ে এবং ষোলঘর মৌজার আর এস দাগে ৬১ শতাংশ ভূমি পেয়ে তাদের দুই মৌজার গ্যাপে ২১ শতাংশ ভূমি উজ্জলকে ভুমিহীন হিসেবে বুঝিয়ে দেন। তখন পার্শ্বের কতক অংশ জমি দাবী করে জনৈক মোকতাদুর রহমান গং উজ্জল শেখের বসবাসরত জায়গা হতে ঘর ভেঙ্গে তার পরিবারসহ অন্যত্র যেতে বলে । অসহায় ভূমিহীন উজ্জল শেখ মানবিক সহায়তা চাহিয়া গত ০২ অক্টোবর ২০১৮ তারিখে জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি, শ্রীনগর উপজেলা আঞ্চলিক শাখা, মুন্সীগঞ্জে একটি আবেদন করেন। উজ্জল শেখের আবেদনের প্রেক্ষিতে জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি সৃষ্ট বিরোধ নিরসনের লক্ষে উভয় পক্ষকে মানবাধিকার শ্রীনগর কার্যালয়ে গত ১৫ অক্টোবর ২০১৯ তারিখ সকাল ১০.০০ ঘটিকার সময় মানবাধিকার শ্রীনগর কার্য্যালয়ে আসার জন্য আহবান পত্র প্রেরন করেন। আহবান পত্র পেয়ে যথাসময়ে ভুমিহীন উজ্জল পরিবার উপস্থিত হলেও মোকতাদুর গং আর উপস্থি হয় নাই। পরে মোকতাদুর গং ১৩ এপ্রিল ২০১৯ তারিখে উজ্জলের বাড়ীতে এসে উজ্জলকে ঘর ভেঙ্গে ফেলতে বলে। উজ্জল ঘর ভাঙ্গতে না চাইলে মোকতাদুর গং ঘটনাস্থলের পার্শ্বে ষোলঘরে তাদের নিজস্ব ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলামকে দিয়ে বিষয়টি মীমাংসা করে দিবে বলে মৌখিকভাবে উজ্জলকে ১৫ এপ্রিল ২০১৯ তারিখ তার কার্যালয়ে যেতে বলে। উজ্জল বিষয়টি জাতীয় মানবাধিকার ইউনিটি, শ্রীনগর উপজেলা আঞ্চলিক শাখা, মুন্সীগঞ্জকে অবগত করিয়া মানবাধিকার ইউনিটির কর্মকর্তাদেরকে নিয়া চেয়ারম্যান কার্যালয়ে হাজির হলে ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম মোকতাদুর রহমান গং কর্তৃক প্রভাবিত হয়ে মানবাধিকার সভাপতিসহ অন্যান্য মানবাধিকার কর্র্মীরা সদস্যরা মীমাংসার জন্য উজ্জল শেখের সাথে যাওয়ায় চেয়ারম্যান কার্যালয়ে যাওয়ায় চেয়ারম্যান আজিজুল ইসলাম পরিষদে সকলের উপস্থিতিতে মানবাধিকার সভাপতিসহ অন্যান্য কর্মীদের উপর রাগান্বিত হয়ে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে ঘর ভেঙ্গে অন্যত্র চলে যাওয়ার জন্য লিখিত নির্দেশ প্রদান করেন। ভূমিহীন উজ্জল শেখ বর্তমানে মোকতাদুর রহমান গংসহ চেয়ারম্যানের আতংকে ভয়ে জীবন যাপন করতেছে।

About admin

Check Also

সিরাজদিখানে পূর্ব শত্রুতার জেরে গৃহবধূকে কুপিয়ে জখম

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে পূর্ব শত্রুতার জেরে গৃহবধূ দুই জন কে কুপিয়ে জখম করার অভিযোগ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *